অরাজ
ডেভিড গ্রেইবার (১৯৬১-২০২০)
প্রচ্ছদ » রোজাভার চিঠি।। গ্রেইবার: আমাদের সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিপ্লবী চিন্তকদের একজন 

রোজাভার চিঠি।। গ্রেইবার: আমাদের সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিপ্লবী চিন্তকদের একজন 

  • অনুবাদ: খন্দকার তুর আজাদ

মানব ইতিহাসের এই জটিল সন্ধিক্ষণে ডেভিডের আরো অনেক কিছুই দেবার বাকি ছিল। আমরা সকলেই তার শুন্যতা অনুভব করবো। কিন্তু সে বেঁচে থাকবে রোজাভায়, বেঁচে থাকবে মানুষের মুক্তির চেতনায়।
— ফ্রিডম ফর আব্দুল্লাহ ওকালান- পিস ইন কুর্দিস্তান

কুর্দি জনতার খুব কাছের বন্ধু ডেভিড গ্রেইবারের মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জানিয়ে আন্তর্জাতিক সংগঠন ফ্রিডম ফর আব্দুল্লাহ ওকলান- পিস ইন কুর্দিস্তান একটি বিবৃতি দিয়েছে।  বিবৃতিটিতে নিচের কথাগুলো ছিল:

নিউইয়র্ক টাইমসের স্মরণিকাপত্র

আমাদের বন্ধু ডেভিড গ্রেইবারের আকস্মিক এবং অপ্রত্যাশিত মৃত্যু আমাদের হৃদয়কে গভীরভাবে ব্যথিত করেছে। তার অকাল মৃত্যু আমাদের সবার জন্যই অপূরণীয় ক্ষতি। আমরা তার পরিবার, বন্ধু এবং সব কাছের মানুষের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ডেভিড গ্রেইবারের সম্পর্কে কোন একটি কথা আলাদা করে বলতে হলে তার ভিন্নদৃষ্টিতে দেখার প্রবণতার কথা উল্লেখ করতে হবে। তিনি সবকিছুকে সম্পূর্ণ অভিনব কায়দায় হাজির করতে জানতেন এবং আমরা যেসব ঘটনাকে অবধারিত হিসাবে ধরে নিই সেগুলার উপর ভিন্নভাবে আলোকপাত করতেন। অতুলনীয় সৃজনশীলতার বদৌলতে জ্ঞানের ভিন্ন ভিন্ন শাখায় ও বিভিন্ন কাল জুড়ে তার পদচারণা ছিল।

ডেভিড ছিলেন একজন দ্বিধাহীন বিপ্লবী ও স্বপ্নদ্রষ্টা। সেটা অকুপাই ওয়ালস্ট্রিটের প্রেক্ষাপটে হোক কিংবা কুর্দিস্তানের বিপ্লব, বিশেষত রোজাভার ক্ষেত্রে। যখনই নিপীড়িতরা নিজেদের হাতে সব তুলে নিয়ে নতুন কিছু তৈরি করতে গিয়েছে তখনই ডেভিড গ্রেইবার সেখানে সাহায্য করতে ছুটে গিয়েছেন। তা হোক তত্ত্ব বা প্রত্যক্ষ সংগ্রাম দিয়ে।

আর সেটা করতে গিয়ে তিনি পুরা দুনিয়ার মুখোমুখি হয়েছেন, দরকার পড়লে পুরা বাম মহলেরও। কুর্দি জনতার কাছাকাছি হবার জন্য তার নেয়া বিভিন্ন পথেও সেটা দেখা যায়। পাঁচ বছরের বেশি সময় আগে ডেভিড গ্রেইবার রোজাভা বিপ্লব নিয়ে বলেছিলেন : ‘না, এটি একটি সত্যিকারের বিপ্লব!’ এরপর আব্দুল্লাহ ওকালানের রাজনৈতিক দর্শন সম্পর্কে তার লেখা প্রবন্ধ দিয়ে ওকালানের সাথে তিনি এক পরোক্ষ সংলাপে অবতীর্ণ হয়েছিলেন৷ Building Free life: Dialogues with Abdullah Ocalan-এ তিনি লিখেছিলেন:

অ্যাকাডেমিকদের কাছ থেকে শুধু এমনটা আশা করা যায় না যে তারা রাজনীতির সাথে সংশ্লিষ্টতা এড়িয়ে চলবেন […] কার্যকরী রাজনৈতিক অ্যাকশন নেয়ার মাধ্যমেও যে কেউ মানব চিন্তায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে এই বিশ্বাসটাকে অস্বীকার করাও এর আরেকটি রূপ। যারা কার্যকর রাজনৈতিক সক্রিয়তায় অংশ নেয় তাদেরকে বড় জোর একটা বিশ্লেষণযোগ্য বস্তু হিসেবে ধরা হয়। চিন্তার বিকাশের ক্ষেত্রে তারা সমানতালে এগোচ্ছে এমনভাবে দেখা হয় না। তাই আব্দুল্লাহ ওকালানের ধারণাগুলা নিয়ে নিয়ে কী করা যায় সে ব্যাপারে সমসাময়িক বুদ্ধিজীবীদের কোন ধারণা না থাকা তেমন বিস্ময়কর কিছু না।

ডেভিডকে আমরা ২০১২ সাল থেকে চিনি যখন সে তার অসাধারণ বই Debt: The first 5,000 Years-এর জার্মান অনুবাদ কোলনে প্রকাশ করেছিল। তারপর থেকেই আমাদের মধ্যে একটা গভীর বন্ধুত্ব গড়ে উঠে। কুর্দি স্বাধীনতা আন্দোলনের বুদ্ধিবৃত্তিক অন্তঃস্বার আন্তর্জাতিক পরিসরে বোধগম্য করার ক্ষেত্রে তিনি বেশ অবদান রেখেছেন। আর  একইসাথে তার নিজের বিশ্লেষণ দিয়ে আমাদের ভাবনাগুলাকেও শাণিত করেছেন।

রোজাভা’র লড়াকু বিপ্লবী

ডেভিড ছিলেন সে ধরনের অ্যাক্টিভিস্ট-চিন্তক যাঁদেরকে আমাদের দুনিয়ায় খুবই দরকার। তার যে শুধু একটা সহৃদয় মন এবং বিচক্ষণ বুদ্ধিবৃত্তি ছিল, তা-ই নয়; তিনি অ্যাকাডেমিক দুনিয়ার একমুখিতার বিরুদ্ধে গিয়ে সে সব বিষয় নিয়ে কাজ করেছেন যেগুলা হয়ত তেমন জনপ্রিয় নয়। পুঁজি ও ক্ষমতার কাঠামো এবং বিদ্যায়তনে এসবের প্রকাশ নিয়ে গভীরভাবে সমালোচনা করা ডেভিড, সমাজকে ন্যায্যতার দিকে পাল্টে দেয়া রেডিকাল মুভমেন্টগুলার অংশ এবং সমর্থক ছিলেন।

একজন দুর্দান্ত নৃবিজ্ঞানী, অ্যানার্কিস্ট অ্যাক্টিভিস্ট, কুর্দিস্তানের বিপ্লবের একজন বন্ধু এবং স্বকীয় অর্থময় সৃষ্টিতে সক্ষম একজন বিপ্লবী চিন্তক হিসেবে মানব ইতিহাসের এই জটিল সন্ধিক্ষণে ডেভিডের আরো অনেক কিছুই দেবার বাকি ছিল। আমরা সকলেই তার শুন্যতা বোধ করবো। কিন্তু রোজাভা এবং যেখানেই মানব মুক্তির চেতনা থাকবে, সেখানেই তিনি বেঁচে থাকবেন।

খন্দকার তুর আজাদ

খন্দকার তুর আজাদ

খন্দকার তুর আজাদ

খন্দকার তুর আজাদ